কক্সবাজার পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর জাবেদ মো. কায়সার নোবেলের আরও ৮০ লাখ জব্দ করেছে দূর্ণীতি দমন কমিশন (দূদক)। ইতোপূর্বেও তাঁর ২০ কোটি টাকা জব্দ করেছিল দূর্ণীতি দমনে নিয়োজিত সরকারি এই সংস্থাটি।

আজ রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বাংলাদেশ ডাকঘর কক্সবাজার শাখা থেকে জাবেদ মো. কায়সার নোবেলের সঞ্চয়ী আমানত থেকে ৮০ লাখ করা হয়।

দূর্ণীতি দমন কমিশনের চট্টগ্রাম কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক শরীফ উদ্দিনের নেতৃত্বে একটি দল কক্সবাজার জেলা ডাকঘরে অভিযান চালিয়ে নোবেলের নামে জমা থাকা ৮০ লাখ টাকা জব্দ করেন।

দূদকের চট্টগ্রাম অঞ্চলের নির্ভরযোগ্য একজন কর্মকর্তা এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ওই কর্মকর্তা জানান, কক্সবাজারে ভূমি অধিগ্রহণ সংক্রান্ত একটি মামলার তদন্ত চলাকালে জাবেদ মো. কায়সার নোবেলসহ কক্সবাজার জেলার ১০ জন ব্যক্তির ব্যাংক হিসাব অনুসন্ধান করছে দূদক। এই ১০ জনের মধ্যে কক্সবাজারে কর্মরত দুইজন সাংবাদিকও রয়েছেন।

সুত্র মতে, দূদকের অনুসন্ধানে কক্সবাজার পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর জাবেদ মো. কায়সার নোবেলের নামে চলমান বেসিক ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, মিচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক এবং ট্রাস্ট ব্যাংক কক্সবাজার শাখায় ইতোপূর্বে ২০ কোটির বেশি টাকার সন্ধান পায় দূদক। ওই টাকা জব্দের পর কক্সবাজার জেলা ডাকঘরে আরও ৮০ লাখ টাকার সন্ধান পেয়েছে সংস্থাটি।

সুত্র জানিয়েছেন, রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) ডাকঘরে সঞ্চিত ওই টাকা জব্দ করতে অভিযান চালায় দূদক।

অভিযোগ মতে, কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের ভূমি অধিগ্রহণ শাখায় কথিত মধ্যস্থতার (দালালি) নামে অবৈধ উপায়ে এসব টাকা হাতিয়ে নেয়া হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে নিশ্চিত হয়েছে দূদক। তাই নোবেলের নামে চলমান ব্যাংক হিসাবে পাওয়া ২০ কোটি ও ডাকঘরে পাওয়া ৮০ লাখ টাকা জব্দ দেখানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সাবেক কাউন্সিলর জাবেদ মো. কায়সার নোবেল ও দুই সাংবাদিকসহ জেলার ১০ জনের হিসাব অনুসন্ধান করছে।