আমার বাংলাদেশ পার্টি পার্টির (এবি পার্টি) কক্সবাজার জেলা আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা উপলক্ষে এক প্রতিনিধি সভা কলাতলীর একটি অভিজাত হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়।

শুক্রবার বিকেলে কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহবায়ক জাহাঙ্গীর কাসেমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, সুপ্রিম কোর্টের প্রখ্যাত আইনজীবী ও এবি পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহবায়ক এড.তাজুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে এড. তাজুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশের বর্তমান প্রচলিত রাজনৈতিক দলগুলোর ব্যার্থতার প্রেক্ষাপটে দল-মত, ধর্ম-বর্ণ ও লিঙ্গ নির্বিশেষে কল্যাণে এবং একটি ইনসাফ পূর্ণ সমাজ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে এবি পার্টি গঠিত হয়েছে। সকলের জন্য এবি পার্টির দরজা খোলা।

সমাবেশে ৫ নারী সদস্য সহ ৪৯ জনের নাম উল্লেখ করে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট এবি পার্টির কক্সবাজার জেলা আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়।

আহবায়ক কমিটি
আহ্বায়ক, অ্যাডভোকেট এনামুল হক সিকদার। যুগ্ম আহ্বায়ক যথাক্রমে-শামসুল হক শারেক, অ্যাডভোকেট মোঃ নুরুল ইসলাম, ভিপি সৈয়দ করিম, এডভোকেট মোহাম্মদ ওসমান আলী, শাহ আলম, রফিকুল আলম ও আবুল কাশেম।

সদস্য সচিব
অ্যাডভোকেট গোলাম ফারুক খাঁন কায়সার। যুগ্ম সদস্য সচিব যথাক্রমে- সারোয়ার সাঈদী, অধ্যাপক এমএ ওয়াহেদ ও আব্দুর রহমান।

সহকারী সদস্য সচিব
যথাক্রমে- এডভোকেট আমিন উদ্দিন চৌধুরী, অ্যাডভোকেট জিয়া উদ্দিন মাহমুদ তমাল, এডভোকেট আলম, অ্যাডভোকেট সালাউদ্দিন আহমেদ, মোরশেদ, কমিশনার মনসুর আলম, সৈয়দ হোসাইন চৌধুরী ও জাহিদুল করিম।

সদস্য
যথাক্রমে- সাজ্জাদ আহমদ চৌধুরী, জিয়াবুল হোসেন, নেয়ামত উল্লাহ, মং মং চৌধুরী, অ্যাডভোকেট খোরশেদ আলম, অ্যাডভোকেট নাসিরুদ্দিন, শফিকুল ইসলাম বাবুল, মোসলে উদ্দিন তৈমুর, মোঃ গিয়াস
উদ্দিন, মোহাম্মদ তারেক রাশিদ, মোহাম্মদ ইস্কান্দার মির্জা, মোহাম্মদ সেলিমুল্লাহ, কামরুল হাসান, আরাফাত উদ্দিন আলফাজ, মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ, অনিল কান্তি দত্ত, মিসেস সেমারাতুন্নেসা, মনিরা হোসেন,আয়েশা বেগম, তাবাসসুম সায়রা ও লুলু মারজান রিতা।#