না ফেরার দেশে চলে গেলেন জনপ্রিয় অভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামান (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকালে পুরান ঢাকার সূত্রাপুরে নিজ বাসায় তিনি শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন।

এ টি এম শামসুজ্জামানের মেয়ে কোয়েল আহমেদ বিষয়টি জাগরণ অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন।

বাবার মৃত্যুতে শোকাহত মেয়ে কোয়েল আহমেদ বলেন, “আব্বা আর নেই। শুক্রবার বিকেলে আব্বাকে বাসায় নিয়ে আসছিলাম। উনি হাসপাতালে থাকতে চাইছিলেন না। তাই বাসায় নিয়ে আসছিলাম। আমি রাত ২টা ৩০ মিনিটে আব্বার বাসায় আসছি। এর কিছুক্ষণ পরই আব্বা আমাদের রেখে চলে গেলেন।”

রাজধানীর জুরাইন কবরস্থানে এ টি এম শামসুজ্জামানের মরদেহটি দাফন করা হবে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

১৯৪১ সালের ১০ সেপ্টেম্বর পুরান ঢাকায় জন্ম নেন এ অভিনেতা। চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় ১৯৬৮ সালে। নারায়ণ ঘোষ মিতা পরিচালিত ‘এতটুকু আশা’ চলচ্চিত্রে তার প্রথম পদচারণ।

অভিনয় ক্যারিয়ারে ৫ বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। শিল্পকলায় অবদানের জন্য ২০১৫ সালে পেয়েছেন রাষ্ট্রীয় সম্মাননা একুশে পদক। অভিনয়ের বাইরে পরিচালক, কাহিনিকার, চিত্রনাট্যকার হিসেবেও পরিচিত এই গুণী অভিনেতা।