আগামী ১৫ জানুয়ারি (শুক্রবার) কক্সবাজারে শুরু হচ্ছে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট ২০২১। জেলা আট উপজেলা আটটি দল নিয়ে এই টুর্ণামন্ট অনুষ্ঠিত হবে। এই উপলক্ষে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে আয়োজক কর্তৃপক্ষ কক্সবাজার পৌরসভা।
এই টুর্ণামেন্টের শুভ উদ্বোধন করবেন কক্সবাজারের কৃতিসন্তান স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দিন আহমেদ।

টুর্ণামেন্টের সকল বিষয় নিয়ে বুধবার (১৩ জানুয়ারি) কক্সবাজার বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়াম ভবনের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
টুর্নামেন্ট বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক কাউন্সিলর হেলাল উদ্দীন কবিরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান।

বক্তব্য রাখেন, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জসীম উদ্দীন ও সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ জসীম উদ্দীন, কক্সবাজার পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি নজিবুল ইসলাম।
পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান বলেন, করোনার কারণে পুরো ২০২০ সাল কোনো আয়োজন করা যায়নি। করোনার প্রকোপ কমে আসায় কক্সবাজারবাসীকে বিনোদন দিতে কক্সবাজার পৌরসভা বঙ্গবন্ধৃর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্ণামেন্টের আয়োজন করা হচ্ছে। প্রতিবছর ধারাবাহিকভাবে এই টুর্ণামেন্ট আয়োজিত হবে।

জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জসীম উদ্দীন বলেন, এটিই কক্সবাজারের প্রথম বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ টুর্ণামেন্ট। এই টুর্ণামেন্ট সুন্দর ও জাঁকজমকভাবে অায়োজন করার জন্য সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। অংশগ্রহণকারী উপজেলা দলগুলোও প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। এই আয়োজনের জন্য মাঠ সংস্কারসহ আনুষঙ্গিক অবকাঠামো উন্নয়ন করা হয়েছে।
খেলায় জাতীয় ও বিদেশী খেলোয়াড়রা অংশ নেবে জানিয়েছে আয়োজক কর্তৃপক্ষ। চ্যাম্পিয়ন দল প্রাইজমানি পাবে এক লাখ টাকা এবং রানাসআপ দল পাবে ৫০ হাজার টাকা।

এ সময় কাউন্সিলর এসআইএম আকতার কামাল আজাদ, মিজানুর রহমান, সাহাব উদ্দিন সিকদার, টুর্নামেন্টের মিডিয়া কমিটির সদস্য সচিব আহসান সুমনসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

খেলার সময়সুচী
১। ১৫ জানুয়ারি চকরিয়া বনাম রামু উপজেলা।
২। ১৬ জানুয়ারি টেকনাফ বনাম মহেশখালী উপজেলা।
৩। ১৭ জানুয়ারি সদর বনাম পেকুয়া উপজেলা।
৪। ১৮ জানুয়ারি উখিয়া বনাম কুতুবদিয়া উপজেলা।
খেলা হবে নকআউট পদ্ধতিতে।
সেমিনাল অনুষ্ঠিত হবে ১৯ ও ২০ জানুয়ারি।
পরে সুবিধাজনক দিনে ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে।