পেরুকে কাঁদিয়ে ৩১ তম দল হিসেবে আসন্ন কাতার বিশ্বকাপে নিজেদের জায়গা পাকা করলো অস্ট্রেলিয়া। আন্তঃমহাদেশীয় প্লে-অফে টাইব্রেকারে গড়ানো ম্যাচের সুবাদে এ নিয়ে টানা পঞ্চম বার এবং সবমিলিয়ে ষষ্ঠবারের মতো বিশ্বকাপের মূল পর্বে খেলবে ক্যাঙ্গারুরা। কাতার বিশ্বকাপে গ্রুপ ডি-তে তাদের প্রতিপক্ষ ফ্রান্স, ডেনমার্ক এবং তিউনিশিয়া।

কাতারের আহমেদ বিন আলি স্টেডিয়ামে নির্ধারিত ৯০ মিনিট ও অতিরিক্ত ৩০ মিনিট শেষেও গোলের দেখা পায়নি কোনো দল।

শেষমেশ বিশ্বকাপে যাওয়ার ভাগ্য নির্ধারিত হলো টাইব্রেকারে। টাইব্রেকারে পেরুকে ৫-৪ গোলে হারিয়ে বিশ্বকাপের টিকিট পেলো অস্ট্রেলিয়া।

টাইব্রেকারে অস্ট্রেলিয়াকে জিতিয়ে আনার নায়ক তাদের ৩৩ বছর বয়সী পেনাল্টি বিশেষজ্ঞখ্যাত গোলরক্ষক রেডমেইন। টাইব্রেকারের শুরুটা ভালো ছিল না অস্ট্রেলিয়ার।

তাদের প্রথম শট থেকেই গোল করতে ব‍্যর্থ হন মার্টিন বয়েল। তবে তারপর টানা পাঁচটি শটই জালে জড়ান অস্ট্রেলিয়ানরা।

পেরুর প্রথম দুটি শট থেকে গোল হলেও তৃতীয় শটে এসে রেডমেইনের সামনে আটকে যান ডিফেন্ডার লুইস আদভিনকুলা। এরপর পেরুর আরও একটি শট ঠেকিয়ে অস্ট্রেলিয়াকে বিশ্বকাপে তুলে নেনে রেডমেইন।

খেলা শেষ হওয়ার মাত্র মিনিট তিনেক আগে নিয়মিত গোলরক্ষক ম্যাথিউ রায়ানের বদলি হিসেবে তাকে মাঠে নামান কোচ। কোচের আস্থার প্রতিদান কি দারুণভাবেই না দিলেন রেডমেইন।

উল্লেখ্য, সর্বশেষ চার বিশ্বকাপেই খেলেছে অজিরা। এ নিয়ে ষষ্ঠবার বিশ্বকাপের মঞ্চে তাঁরা। ১৯৭৪ জার্মানি বিশ্বকাপে অভিষেক হয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার।

কাতার বিশ্বকাপ নিশ্চিত হওয়ায় গ্রুপ ‘ডি’তে জায়গা করে নিল অস্ট্রেলিয়া। সেখানে তাদের সঙ্গী বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স, ডেনমার্ক ও তিউনিসিয়া।