কুতুবদিয়ায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন মামলার পাঁচ পালাতক আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে। আজ রবিবার (২৫ অক্টোবর) দিবাগত রাত ৩ টার দিকে উপজেলার দক্ষিণ ধূরুং ও লেমশীখালী ইউনিয়নে থানা পুলিশের একটি টীম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পৃথক অভিযানের মাধ্যমে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত আসামীরা হলেন, দক্ষিণ ধূরুং ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মুছার সিকদার পাড়া এলাকার গোলাম সোবহানের ছেলে মোক্তার আহমদ (৫৯), তার ভাই মোস্তাক আহমেদ (৫৫),  মোক্তার আহমদের ছেলে মোঃ আয়াস (২১), মোস্তাকের ছেলে সাজ্জাদ হোসেইন (৩০) এবং লেমশীখালী ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের তহলি পাড়া এলাকার মৃত আলি আহমদের ছেলে মোঃ আব্দু শুক্কুর (৫২)।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দক্ষিণ ধূরুং  ইউনিয়নের মুছার সিকদার পাড়া ও লেমশীখালী ইউনিয়নের তহলি পাড়া এলাকায় পাঁচ পালাতক আসামীরা অবস্থান করার গোপন সংবাদ পায় পুলিশ। থানার ওসি মোঃ জালাল উদ্দীনের নেতৃত্বে  পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) এসআই জুয়েল ইসলাম, এসআই রায়হান উদ্দিন, এসআই সানা উল্লাহ, এসআই নুরে আলম, এসআই মকবুল হোসেন, এএসআই মোঃ ইব্রাহিম মিয়া, এএসআই সরোজ বড়ুয়া, এএসআই কামরুল ইসলামসহ সঙ্গীয় একটি টিম নিয়ে ওই এলাকা গুলোতে পৃথক ভাবে অভিযান চালায়। অভিযানে পলাতক আসামী দক্ষিণ ধূরুং  ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মুছার শিকদার পাড়া এলাকার মোক্তার আহমদ(৫৯), মোস্তাক আহমেদ (৫৫), মোঃ আয়াস (২১), সাজ্জাদ হোসেইন (৩০) এবং লেমশীখালী ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের  তহলি পাড়া এলাকার মোঃ আব্দু শুক্কুর (৫২)কে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে আদালতে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা হওয়ার পর থেকে তারা এলাকা ছেড়ে পালাতক ছিল।

এব্যাপারে, কুতুবদিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: জালাল উদ্দীন বলেন, থানা পুলিশের একটি টীম গোপন সংবাদের মাধ্যমে অভিযান চালিয়ে পাঁচ পলাতক আসামীকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। পাঁচ জনের বিরুদ্ধে আদালতের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি রয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত আসামীদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। পুলিশের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

প্রবাল/মইম