সংবাদ বিজ্ঞপ্তি : বাড়ি ভাংচুর ও জন্মদাতা মাকে শারিরীক নির্যাতনের অভিযোগে চকরিয়া থানা পুলিশ মাদকাসক্ত এক সন্তানকে আটক করেছে।

শনিবার সন্ধ্যায় ওই মাদকাসক্ত যুবককে আটক করা হয়। ওই যুবকের নাম মাজহারুল ইসলাম জিশান (৩১)। তিনি চকরিয়া সদরের চিরিঙ্গা পুরাতন বাস টার্মিনাল এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা ব্যবসায়ী মৃত্যু ওবায়দুল হকের পুত্র।

ওবায়দুল হক ছিলেন চকরিয়ার বিশিষ্ট ও স্বনামখ্যাত ব্যবসায়ী কবির আহমদ কোম্পানীর পুত্র।
আটক যুবক জিশানের জন্মদাতা মা, মৃত ওবায়দুল হকের স্ত্রী ফরিদা ইয়াসমিন পুতু (৫১) সাংবাদিকদের বলেন, তিনি একজন বিধবা। জিশান বড় সন্তান। সে মাদকাসক্ত হয়ে পড়লে আমার পরিবার তাকে ভাল করার জন্য নানাভাবে অনেক টাকা পয়সা খরচ করে আপ্রাণ চেষ্টা চালাই। কিন্তু সে কোনভাবেই সৎ পথে আসে নেই। সে তার মাকে টাকার জন্য প্রায় সময় নানাভাবে নির্যাতন নিগৃত করে। এমন কী শারিরীক নির্যাতন ও চালিয়েছে। ও শনিবার মাকে মারধর করেছে। মা বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। সে  মারধর করেই ক্ষ্যান্ত হয়নি, ঘরবাড়ি ও তছনছ করেছে। মা হিসেবে এই রকম নষ্ট হয়ে যাওয়া সন্তানের বিচার চান তিনি।
এ বিষয়ে জানার জন্য চকরিয়া থানার ওসি শাকের মো: যুবায়ের এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি জিশানকে আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তার বিরুদ্ধে কেউ থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ মামলা রুজু করে আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।