কক্সবাজারের চকরিয়ায় সংবাদ সংগ্রহ করে ফেরার পথে দুর্বৃত্তের হামলায় তিন সাংবাদিক আহত হয়েছেন। এসময় সাংবাদিকদের ব্যবহৃত মোবাইল সেট, ক্যামেরা ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ। রবিবার বিকাল তিনটার দিকে ডুলাহাজারা বঙ্গবন্ধু সাফারী পার্ক গেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত ৩ সাংবাদিক হলেন, চকরিয়া প্রেস ক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ উল্লাহ, মনসুর মহসিন ও মোস্তফা কামাল।

পরে স্থানীয় লোকজন আহত তিন সাংবাদিককে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এর আগে ডুলাহাজারা এলাকার হাসানুল ইসলাম আদর নামে এক যুবলীগ নেতার নেতৃত্বে পাহাড় কেটে মাটি লুটের ঘটনা নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে ওই যুবলীগে নেতা বেশ কয়েকজন সাংবাদিককে মুঠোফোনে প্রাণনাশের হুমকি দেন। এ ঘটনায় তিন সাংবাদিক বাদী হয়ে ওই যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে চকরিয়া থানায় পৃথক তিনটি সাধারণ ডায়েরী রুজু করেন। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে তিন সাংবাদিকের উপর হামলা চালিয়েছে একদল দুর্বৃত্ত।

সন্ত্রাসী হামলায় আহত সাংবাদিক মোহাম্মদ উল্লাহ বলেন, সম্প্রতি ডুলাহাজারা এলাকায় পাহাড় কেটে মাঠি লুটের ঘটনায় বিভিন্ন সংবাদপত্রে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এর জের ধরে রবিবার সকাল থেকে কক্সবাজার পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালকের নেতৃত্বে একটি টিম ঘটনাস্থলে পরিদর্শন শুরু করেন। পরিদর্শন সংবাদ সংগ্রহ করতে যাই আমরা তিন সাংবাদিক। সংবাদ সংগ্রহ শেষে ফেরার পথে সাফারী পার্ক এলাকায় পৌছালে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা  হাসানুল ইসলাম আদরের ভাই যুবদল নেতা নয়নের নেতৃত্বে ১০-১২ জন সন্ত্রাসী আমাদের গতিরোধ করে।

এক পর্যায়ে গাড়ি থেকে নামিয়ে মারধর করে ও অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। এসময় আমাদের ব্যবহৃত মোবাইলসেট, ক্যামেরা ও পকেটে থাকা নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয়। আমাদের শোর চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। পরে খবর পেয়ে থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, তিন সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।