হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর মরদেহ ১৮ সেপ্টম্বর শুক্রবার রাতেই ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে নেয়া হবে। হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর নামাজে জানাজা ১৯ সেপ্টেম্বর শনিবার জোহরের নামাজের পর দুপুর ২টায় অনুষ্ঠিত হবে। জানাজায় ইমামতি করবেন তার সন্তান আনাস মাদানী।

১৮ সেপ্টেম্বর শুক্রবার রাত ৯টায় এ সিদ্ধান্তের বিষয়ে জানিয়েছে হাটহাজারী মাদরাসার শুরা কমিটি।

জানা গেছে, হেফাজত আমিরকে ঢাকার জামিয়া ফরিদাবাদ মাদরাসায় গোসল ও কাফন পরিয়ে শুক্রবার আনুমানিক রাত সাড়ে ১০টায় হাটহাজারীর উদ্দেশে রওনা দেয়া হবে।

এসব বিষয় নিশ্চিত করে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন বলেন, ‘শুরা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী হাটহাজারী মাদরাসা সংলগ্ন কবরস্থানে দাফন করা হবে। এ লক্ষ্যে মাদরাসার শুরা কমিটি ও প্রশাসন বিস্তারিত পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে।’

১৮ সেপ্টেম্বর শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে হেফাজত ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর শারীরিক অবস্থা অবনতি হতে থাকে। এরপর এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে থাকা আল্লামা শফীকে পুরান ঢাকার গেন্ডারিয়ায় আজগর আলী হাসপাতালে আনা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি