চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ক্যাম্পাস ও আশেপাশে ব্যক্তি মালিকানাধীন কটেজের (মেস) ৪০ শতাংশ ভাড়া ছাড় দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ভর্তুকি বাবদ কটেজ মালিক সমিতিকে ৫০ হাজার টাকা অনুদান দিবে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল আমীন।

রোববার বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন, কটেজ মালিক সমিতি, হাটহাজারি ইউএনও’র যৌথ সমন্বয়ে দফায় দফায় বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেন তারা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া।

তিনি বলেন, ‘করোনা সমস্যার কারণে অধিকাংশ শিক্ষার্থী আর্থিক সমস্যার মুখোমুখি হয়েছে। তাই ছাত্রদের কথা বিবেচনা করেই দীর্ঘদিন ধরে আমরা তাদের কাছে দাবী করে আসছিলাম। কিন্তু তারা প্রথমে ২০শতাংশ পরে ৩০শতাংশ মওকুফের কথা বলে। কিন্তু আমরা ৫০শতাংশ মওকুফের দাবি করি। পরে দীর্ঘ আলোচনার পরে ৪০শতাংশে সমাঝোতা হয়।

হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়, থানা ও উপজেলা প্রশাসনের উপস্থিতিতে কটেজ মালিক সমিতির সাথে আজ একটি সভা হয়। আমরা ৫০ শতাংশ মওকুফের দাবী করি, কিন্তু সমিতি ৩০ শতাংশ ছাড় দিতে চাচ্ছিল।
অনেক্ষণ আলোচনা করে মালিক সমিতি ৪০ শতাংশ ছাড়ে সম্মত হলে আমি সমিতিকে ৫০ হাজার টাকা অনুদান দেওয়ার কথা বলি। সমিতি আমার অফিসে আসলেই চেক পেয়ে যাবে।