টিকা নেওয়ার পরও করোনায় আক্রান্ত ব‌্যক্তিদের মৃত‌্যুঝুঁকি কম বলে জানিয়েছে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)।

আইডিসিআর থেকে জানানো হয়েছে, ২০২১ সালের মে ও জুন মাসে দ্বৈবচয়নের ভিত্তিতে নির্বাচিত ৩০ বছরের বেশি বয়সী ১ হাজার ৩৩৪ জন করোনা রোগীর ওপর গবেষণা করা হয়। তাদের মধ্যে ৫৯২ জন এক ডোজ টিকাও নেননি এবং ৩০৬ জন দুই ডোজ টিকা নেওয়ার অন্তত ১৪ দিন পর নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। করোনা শনাক্ত হওয়ার কমপক্ষে ১৪ দিন পর তাদের সাক্ষাৎকার গ্রহণ করা হয়।

গবেষণায় দেখা যায় যে, টিকা না নেওয়া রোগীদের মধ্যে শ্বাস-প্রশ্বাসজনিত জটিলতার হার ছিল ১১ শতাংশ এবং পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়ার পরে করোনায় আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে তা ছিল ৪ শতাংশ। অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত টিকা না নেওয়া কোভিড-১৯ রোগীদের মধ্যে শ্বাস-প্রশ্বাসজনিত জটিলতার হার এবং পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণ পরবর্তী আক্রান্তদের তুলনায় ১০ শতাংশ বেশী পাওয়া যায়।

হাসপাতালে ভর্তির হার টিকা না নেওয়া আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ২৩ শতাংশ এবং পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণ পরবর্তী আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ৭ শতাংশ ছিল। অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত টিকা না নেওয়া কোভিড-১৯ রোগীদের মধ্যে হাসপাতালে ভর্তির হার ছিল ৩২ শতাংশ এবং পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণ পরবর্তী আক্রান্তদের মধ্যে যা ছিল ১০ শতাংশ। একের অধিক অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত টিকা না নেওয়া কোভিড-১৯ রোগীদের হাসপাতালে ভর্তির হার, পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণকারীদের তুলনায় ১৬ শতাংশ বেশি ছিল।

গবেষণায় অংশগ্রহণকারী টিকা না নেওয়া আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ১৯ জনের (৩ শতাংশ) আইসিইউ-তে ভর্তির প্রয়োজন হয়েছিল এবং পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণ পরবর্তী আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ৩ জনের (১ শতাংশের কম) আইসিইউতে ভর্তির প্রয়োজন হয়েছিল। টিকা না নেওয়া আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ১৭ জন (৩ শতাংশ) রোগী মারা যান এবং টিকা গ্রহন পরবর্তী আক্রান্তদের মধ্যে ১ জন (০.৩ শতাংশ) রোগী মারা যান।

আইইডিসিআর করোনা প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পাশাপাশি পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়ার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।