টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের নয়াপাড়া রেজিস্টার্ড রোহিঙ্গা শিবির থেকে দেশীয় অস্ত্রসহ ১০ রোহিঙ্গাকে আটক করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)।

বুধবার (৪ মে) বিকেলে এপিবিএনের পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

এর আগে একই দিন ভোরে নয়াপাড়া রেজিস্টার্ড রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এইচ ব্লকে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

আটক রোহিঙ্গারা হলেন- আক্তার হোছেন (২০), মোহাম্মদ ইলিয়াস (৩০), মোহাম্মদ রফিক (১৮), খাইরুল আমিন (১৯), মোহাম্মদ ইলিয়াস (২২), মোহাম্মদ হাসান (১৮), মোহাম্মদ নুর (২০), সাইফুল রহমান (১৮), নুরুল আমিন (২৪) ও মোহাম্মদ শাহিন (১৯)।

তারা সবাই নয়াপাড়া রেজিস্টার্ড রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বসবাস করেন।

১৬ এপিবিএনের অধিনায়ক ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ তারিকুল ইসলাম বলেন, ওই রোহিঙ্গা শিবিরের এইচ ব্লকে কয়েকজন রোহিঙ্গা ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল, গোপন সূত্রে এমন খবর পেয়ে এপিবিএনের সদস্যরা সেখানে অভিযান চালায়।

এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতরা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টাকালে একটি দেশীয় এলজিসহ ১০ জনকে আটক করা হয়।

তিনি আরও জানান, আটকরা ডাকাতদলের সক্রিয় সদস্য।

এর মধ্যে আক্তার হোছেন হত্যা মামলার আসামি। বাকিরা রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় অপহরণ, ছিনতাই, চাঁদাবাজি, দস্যুতা, মাদকসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। আটক রোহিঙ্গাদের টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।