টেকনাফ উপজেলা কর্মরত ইউএনও মোঃ পারভেজ চৌধুরীর বিদায় ও নবাগত মোঃ কায়সার খসরুর বরণ অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেছেন, সংবাদপত্র দেশ ও জাতির দর্পণস্বরূপ। সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে অপসাংবাদিকতাকে কঠোর হাতে দমন করে এলাকার উন্নয়ন সম্ভাবনা,সমাজের অনিয়ম-দূর্নীতির তুলে ধরে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের সাথে সমন্বয় করে কাজ করলে এলাকায় আরো উন্নয়ন সম্ভব। হয়তো কাজ করতে গিয়ে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কোথাও ভূল হলে শোধরাতে হবে। অনেক সাংবাদিক বিরোধিতার খাতিরে বিপক্ষে লেখালেখি করে জনমনে ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করে। এমতাবস্থায় উন্নয়ন কর্মকান্ড ব্যাহত হয়। সাংবাদিক নেতৃবন্দ বলেন, এমপি, উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউএনও অত্যন্ত আন্তরিক বলেই সর্বস্তরের সাংবাদিকেরা বসার জন্য একটি ঘর নির্মাণে সহযোগিতার জন্য সকলের পক্ষ থেকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানানো হয়। নবাগত ইউএনও প্রকৃত সাংবাদিকদের উন্নয়নে সার্বিক সহায়তার আশ্বাস প্রদান করে।

২৯ মার্চ বাদে আছর টেকনাফ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে টেকনাফ উপজেলা কর্মরত ইউএনও মোঃ পারভেজ চৌধুরীর বিদায় ও নবাগত মোঃ কায়সার খসরুর বরণ উপলক্ষ্যে একসভা টেকনাফ প্রেসক্লাব হল মিলনায়তনে আহবায়ক আলহাজ¦ মোঃ ছৈয়দ হোছাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সাবেক সভাপতি জাবেদ ইকবালের সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পদোন্নতি জনিত বিদায়ী ইউএনও মোঃ পারভেজ চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন নবাগত ইউএনও মোঃ কায়সার খসরু, টেকনাফ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ এরফানুল হক চৌধুরী। সভার শুরুতে অতিথিবৃন্দকে ফুলের তোড়া দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়।

প্রেসক্লাবের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাবেক সভাপতি জাবেদ ইকবাল চৌধুরী বাবুল। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাবেক সহসভাপতি আশেক উল্লাহ ফারুকী, আলহাজ¦ মুহাম্মদ তাহের নঈম, আব্দুর রহমান, জিয়াবুল হক, মৌলভী মোঃ জুবাইর, গিয়াস উদ্দিন ভূলু, আমান উল্লাহ কবির প্রমুখ।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক নুরুল হক, হুমায়ূন রশিদ, কাইছার পারভেজ চৌধুরী, জিয়াউর রহমান জিয়া, মোঃ রশিদ, নুর হাকিম, মোঃ শাহীন, সাদ্দাম হোসাইন, ফরিদুল আলম, রহমত উল্লাহ, শামসুদ্দিন, আলমগীরসহ কর্মরত বিভিন্ন সাংবাদিকেরা উপস্থিত ছিলেন। শেষে বিদায়ী ইউএনও এবং নবাগত ইউএনওকে ক্রেস্ট দিয়ে বিদায় এবংবরণ করে নেওয়া হয়। এরপর দেশ, জাতি ও সকলের কল্যাণ কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।