টেকনাফে ৫০ বছরের এক ব্যক্তির লালসার শিকার হয়ে ৬ বছরের এক মেয়ে শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। স্থানীয়দের সহায়তায় ধর্ষককে আটকের পর রক্তাক্ত ভিকটিমকে উদ্ধার করে।

স্থানীয় সূত্র জানা যায়, শনিবার (৪ সেপ্টম্বর) দুপুর ১টারদিকে উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের রাসুলাবাদ পাহাড়ি জনপদ (হামজার ছড়া) এলাকার সমিলের পাশে অটোরিক্সা চার্জ গ্যারেজের পাশে খেলারত প্রবাসীর ৬ বছরের শিশু শাপলা (ছদ্ধনাম) নাস্তা কিনতে আসার পথে ফুসলিয়ে চিপস খাওয়ার জন্য ১০টাকার নোট দিয়ে প্রতিবেশী মৃত ছবিউর রহমানের পুত্র হাবিবুর রহমান ওরফে হাবিব (৫০) জোরপূর্বক অটোরিক্সার উপরে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। দুপুর ২টারদিকে ভিকটিমের পরিবার এই ঘটনা অবহিত হওয়ার পর শিশুটির অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হওয়ায় টেকনাফ থানা পুলিশকে খবর দেয়। রাত পৌনে ৮টার দিকে থানার এসআই রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জনতার সহায়তায় ধর্ষককে আটক করে। এরপর ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ভিকটিমকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি মোঃ হাফিজুর রহমান জানান, এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ধর্ষক হাবিবকে জনতার সহায়তায় আটক করে এবং ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য নিয়ে এসে হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।