বিশ্বের সবচেয়ে পুরোনো কম্পিউটারটির বয়স দুই হাজার বছরের বেশি। অ্যান্টিকাইথেরা মেকানিজম নামে পরিচিত যন্ত্রটি পাওয়া যায় ১৯০১ সালে। গ্রীসের এক দ্বীপের কাছে জাহাজের ধ্বংসস্তূপে। তবে এটি ঠিক কখন নির্মিত হয়েছিল তা নিয়ে এখনো গবেষণা চলছে।

১৯০১ সাল গ্রীসের অ্যান্টিকাইথেরা দ্বীপের কাছে আবিষ্কৃত হয়েছিলো এক জাহাজের ধ্বংসস্তূপ। তাতে পাওয়া যায় এ যাবতকালের সবচাইতে রহস্যময় এবং জটিল কিছু বৈজ্ঞানিক যন্ত্রপাতি।

ধারণা করা হচ্ছে এর মাঝে পাওয়া একটি যন্ত্র হলো পৃথিবীর সবচাইতে প্রাচীন কম্পিউটার! অ্যান্টিকাইথেরা মেকানিজম। যা কমপক্ষে দুই হাজার বছরের পুরনো।

এই জাহাজের ধ্বংসস্তূপ থেকে আরো পাওয়া যায় ব্রোঞ্জ ও মার্বেলের তৈরি মূর্তি, পাত্র ও অলংকার আর পুরোনো মুদ্রার সাথে পাওয়া যায় এই যন্ত্রটি। এরপর এগুলো রাখা হয় এথেন্সের প্রত্নতাত্ত্বিক জাদুঘরে।

ধারণা করা হয়, এই ঘড়ির মতো যন্ত্রটি দিয়ে প্রাচীন গ্রিক মানুষেরা জ্যোতিষ্কের গতিবিধি পরিমাপ করতো। এতে রয়েছে কম করে হলেও ৩০টি ব্রোঞ্জের গিয়ার। আর এই পুরো জিনিসটা বসানো আছে একটা কাঠের ফ্রেমে যাতে খোদাই করা আছে প্রায় দুই হাজার বর্ণ।

বিজ্ঞানীরা পরবর্তীতে এটি পুননির্মাণ করে দেখিয়েছেন কিভাবে কাজ করতো অ্যান্টিকাইথেরা ম্যেকানিজম। তবে এই যন্ত্রের ইতিহাস এখনো অজানা। ঠিক কী করে তা গ্রিকদের থেকে রোমানদের হাতে এলো তার ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

১৯৭৪ সালে যন্ত্রটির গঠন প্রকৃতি গবেষণা করে ধারণা করা হয় এটি নির্মিত হয়েছিল খৃষ্টপূর্ব ৮৭ সালের দিকে। এর দু’বছর পর আরেক গবেষক ধারণা করেন এর নির্মান কাল আরো কিছু আগে। খৃষ্টপূর্ব ৭৬ থেকে ৭৭ সালের দিকে।

অ্যান্টিকাইথেরা মেকানিজম ঠিক কখন নির্মিত হয়েছিল তা নিয়ে এখনো গবেষণা চলছে। যে যুগে এটি তৈরি করা হয়েছিল সেসময়েও যে এমন ধরণের যন্ত্র নির্মাণ করা যেতে পারে এই তথ্যটি ইতিহাসের জন্য এক আশ্চর্যজনক আবিস্কার।