কক্সবাজারের পেকুয়ায় নুরুল আলম (২৬) নামের এক মিশুক চালক রশি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

রবিবার (৩০ জানুয়ারী) ভোর ৫টায় উপজেলার সদর ইউনিয়নের শেখেরকিল্লাঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নুরুল আলম একই এলাকার নুর মুহাম্মদের ছেলে। খবর পেয়ে পেকুয়া থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করেছে।

নিহতের স্ত্রী রুজিনা আক্তার বলেন,রাতে খাওয়া দাওয়া সেরে ঘুমিয়ে পড়ি। ভোরে নুরুল আলম ঘর থেকে বের হয়। এরপর দেখি গাড়ি রাখার ঘরে গলায় ঝুলন্ত লাশ।

প্রত্যক্ষদর্শী নিহতের ছোট ভাই নুরুল ইসলাম বলেন,প্রতিদিনের মতো সকালে মিশুক গাড়ি নিয়ে বের হই। বাড়ির পাশে গাড়ি রাখার আলাদা ঘর রয়েছে। গাড়ি বের করতে ঘরে ঢুকে দেখতে পাই ঘরের আঁড়ির সাথে গলায় রশি দিয়ে আমার ভাইয়ের ঝুলন্ত লাশ। তাকে দ্রুত পেকুয়া সরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

নিহতের পিতা নুর মুহাম্মদ বলেন,দুই ছেলে মিশুক গাড়ি চালায়। নুরুল আলম কয়েকমাস ধরে আর্থিক লেনদেন নিয়ে মানসিক সমস্যায় ভুগছিল। কিন্তু সে কাউকে বুঝতে দেয়নি। সে ঋন্গ্রস্ত।

এ ব্যাপারে পেকুয়া থানার ওসি (তদন্ত) কানন সরকার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে।