১৪ সেপ্টেম্বর এবি পার্টি উদ্যোগে কক্সবাজার জেলার পেকুয়া উপজেলায় এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অধ্যাপক এম এ ওয়াহেদ ও সহকারী সদস্য সচিব এ্যাডঃ গোলাম ফারুক খান কায়সারের যৌথ পরিচালনায়, উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ মাওলানা শের আলী এবং প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এবি পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম আহবায়ক, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক জাহাঙ্গীর কাসেম।

প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন সদস্য সচিব মজিবুর রহমান মঞ্জু এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় বারবাকীয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জনাব আল্লামা বদিউল আলম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জনাব জাহাঙ্গীর কাসেম বলেন, অধিকার বঞ্চিত এই জনপদে ইনসাফের ভিত্তিতে রাস্ট্র কায়েম করা ব্যতীত আমাদের সামনে আর কোন বিকল্প নেই। প্রধান বক্তার

বক্তব্যে সদস্য সচিব মজিবুর রহমান মন্জু বলেন, আমরা দেখতে পাচ্ছি বড় দুই দলের রাজনীতি ও ক্ষমতা চর্চায় দৃশ্যত কোন পার্থক্য নাই। উভয় দলের ক্ষমতার আদর্শ এক। গণতন্ত্র নস্যাৎ করতে এবং বাংলাদেশের নির্বাচন ব্যবস্থা ধ্বংসে উভয় দল একই ধরনের ভূমিকা রেখেছে।

বর্তমানে গণতন্ত্রহীনতার যে সংকটে আজ জাতি পতিত হয়েছে, সেখান থেকে বেরিয়ে আসার ক্ষেত্রে এই দলগুলো কোন কার্যকর ভূমিকা রাখতে ব্যর্থ। সেজন্য দরকার বিকল্প রাজনৈতিক শক্তির উত্থান। যে শক্তি নাগরিকদেরকে ধর্ম, জাতি এবং মতাদর্শিক ধারায় বিভাজন না করে, স্বাধীনতার ঘোষনাপত্রে উল্লেখিত তিন মূলনীতি – সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও সামাজিক ন্যায়বিচার -এর আলোকে ঐক্যবদ্ধ করে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে ঝাঁপিয়ে পরবে এবং রাষ্ট্রের বিনির্মাণে কার্যকর ভূমিকা পালন করবে। এবি পার্টি সেই লক্ষ্যেই যাত্রা শুরু করেছে। তিনি সকলকে উদাত্ত আহবান জানান এই ঐক্য ও অধিকারের রাজনীতিতে শামিল হবার জন্য।

মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম সদস্য সচিব ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান ফুয়াদ, সহকারী সদস্য সচিব বিশিষ্ট সাংবাদিক শামসুল হক শারেক, সাবেক ছাত্রনেতা এ্যাডঃ এনামুল হক শিকদার, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আব্দুল্লাহ আল হাসান সাকীব, ভিপি সৈয়দ করিম, আব্দুর রহমান, বিশিষ্ট সমাজকর্মী আবুল কাসেম ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।