কিরগিজিস্তানের বিরোধীদলের সহিংস ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে দেশটির প্রধানমন্ত্রী কুবাতবেক বরোনভ পদত্যাগ করেছেন।

বিরোধীরা গতকাল (মঙ্গলবার) বিক্ষোভের এক পর্যায়ে জাতীয় সংসদ ভবন, প্রেসিডেন্ট প্রাসাদ ও প্রধান নিরাপত্তা ভবন দখল করে নেয় এবং নির্বাচন কমিশনকে সদ্য সমাপ্ত সংসদ নির্বাচনের ফলাফল বাতিল করতে বাধ্য করে।

এ অবস্থা প্রধানমন্ত্রী কুবাতবেক ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়ান। তার পদত্যাগের খবর কিরগিজিস্তানের সংসদ প্রেস সার্ভিস সর্বপ্রথম প্রচার করে। খবরে জানানো হয়- সংসদের পক্ষ থেকে বিরোধী রাজনীতিক সাদির ঝাপারভকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তিনি ভারপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

বিক্ষুব্ধ জনতা পুড়িয়ে দেয় এমন অনেক গাড়ি
এর আগে রোববার অনুষ্ঠিত নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে বিক্ষেভ শুরু করে বিরোধীরা। তারা নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপির অভিযোগ করেছে। ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে প্রেসিডেন্ট সুরোনবাই জিনবেকভ আত্মগোপনে চলে গেছেন।

সোমবার থেকে শুরু হওয়া বিক্ষোভের এক পর্যায়ে বিরোধীরা সাবেক প্রেসিডেন্ট আলমাসবেক আতামবায়েভকে কারাগার থেকে মুক্তি দেয়। বর্তমান প্রেসিডেন্ট সুরোনবাইয়ের সঙ্গে মতদ্বন্দ্বতা সৃষ্টি হলে দুর্নীতির অভিযোগে তাকে দীর্ঘ মেয়াদে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছিল।