নোয়াখালীর ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের মানবিক সহায়তা দিতে শনিবার বাংলাদেশের সঙ্গে চুক্তি করবে জাতিসংঘ। গতকাল মঙ্গলবার উভয় পক্ষ চুক্তির বিভিন্ন বিষয় চূড়ান্ত করা হয়েছে।

আজ বুধবার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ সচিব মো: মহসিন গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা কালের কণ্ঠকে জানান, রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে যাওয়া নিয়ে বর্তমানে সরকারের সঙ্গে আলোচনা চলছিল জাতিসংঘের। এ আলোচনায় বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। সেখানে রোহিঙ্গাদের চলাচলের স্বাধীনতা, শিক্ষা, কর্মসংস্থানের সুযোগ, নির্বাচনের সুযোগসহ বিভিন্ন শর্ত দিয়েছে জাতিসংঘ। সেই সঙ্গে ভাসানচরের মতো কক্সবাজারে রোহিঙ্গা শিবিরেরও আবদার জুড়ে দিয়েছে তারা। কিন্তু এসব শর্তের মধ্যে কিছু শর্ত রয়েছে, যেগুলো আংশিক মেনেছে বাংলাদেশ। আর কিছু শর্ত রয়েছে, যা কোনোভাবেই মানেনি।

জানা গেছে, রোহিঙ্গাদের চলাচলের স্বাধীনতা চেয়েছে জাতিসংঘ। এখানে শুধু জরুরি ক্ষেত্রে যেমন কেউ অসুস্থ হয়ে পড়লে, সে ক্ষেত্রে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়ার মতো বিষয়গুলোতে বাংলাদেশ ছাড় দেবে।