বাস ও লঞ্চের পর এবার রাজধানী ঢাকার সঙ্গে সারাদেশের রেল চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। আজ মঙ্গলবার রাত ১২টা থেকে এই নির্দেশনা কার্যকর হবে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন সাংবাদিকদের এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

মন্ত্রী জানান, ঢাকায় কোনো ট্রেন প্রবেশ করবে না এবং ঢাকা থেকে কোনো ট্রেন অন্য জেলায় যাবে না। তবে লকডাউনের আওতামুক্ত থেকে জেলাগুলো স্বাভাবিকভাবে ট্রেন চলাচল করবে বলে জানান মন্ত্রী।

নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, ‘আমরা আগের সিদ্ধান্ত সংশোধন করেছি। ঢাকার সঙ্গে দেশের অন্যান্য এলাকার যোগাযোগ থাকছে না। তবে লকডাউনের আওতায় থাকা জেলাগুলো বাদে দেশের অন্যান্য এলাকায় ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।’

এর আগে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় মঙ্গলবার গাজীপুরে চলাচলরত তুরাগ এক্সপ্রেস ও কালিয়াকৈর কমিউটার ট্রেন বাতিল করেছিল রেলপথ মন্ত্রণালয়। বলা হয়েছিল, ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া ট্রেন নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা কোনো জেলায় থামবে না। পরে সে সিদ্ধান্ত বদল করেছে মন্ত্রণালয়। আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত এ সিদ্ধান্ত বলবৎ থাকবে।

করোনা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় গতকাল সোমবার রাজধানী ঢাকাকে সুরক্ষিত রাখতে পার্শ্ববর্তী সাত জেলায় লকডাউন ঘোষণা করে সরকার। জেলাগুলো হচ্ছে- মানিকগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, গাজীপুর, মাদারীপুর, রাজবাড়ী এবং গোপালগঞ্জ। মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত এই লকডাউন চলবে। এতে ঢাকামুখি বাস ও লঞ্চ চলাচলও বন্ধ হয়ে গেছে। এবার ট্রেন চলাচল বন্ধ হওয়ায় সারাদেশ থেকে ঢাকা কার্যত বিচ্ছিন্ন হয়ে গেল।