দীর্ঘ সময়ের অপেক্ষার পর অবশেষে আজ(শুক্রবার) রাতে পর্দা উঠছে উয়েফা ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের। আসন্ন এই টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে তুরস্কের বিপক্ষে মাঠে নামছে ইতালি। ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ সময় রাত ১টায়।

টুর্নামেন্টের ১৬তম আসর গত বছরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও করোনাভাইরাসের প্রকোপ বৃদ্ধির কারণে সময়মতো তা আয়োজন করা হয়নি। এরপর পরিস্থিতি বিবেচনায় নতুন দিনক্ষণ ঠিক করে উয়েফা। আর সে অনুযায়ী ইউরোপের প্রায় ১১টি দেশে এবারের টুর্নামেন্টটি চলবে।

গ্যালারিতে দর্শক থাকবে ঠিকই কিন্তু সংখ্যায় বিধিনিষেধ আছে। তকেব হাঙ্গেরির বুদাপেস্টে শতভাগে দর্শক থাকার অনুমতি মিলেছে। বাকি ১০ ভেন্যুতে দর্শক কোথাও অর্ধেক, কোথাও চার ভাগের এক ভাগ। জার্মানির মিউনিখে সবচেয়ে কম, ২২ শতাংশের কাছাকাছি।

এখন সবার মনে একটাই প্রশ্ন, টুর্নামেন্ট তো শুরু হচ্ছে কিন্তু শিরোপা জিতবে কে? বর্তমান ইউরো চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল এবার আসছে তর্ক সাপেক্ষে। কেননা তাদের ইতিহাসের সবচেয়ে প্রতিভাবান দল নিয়ে লড়তে প্রস্তুত তারা। এছাড়া বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স আছে আলোচনার তুঙ্গে। এমবাপ্পে-গ্রিজমানদের পাশে ছয় বছর পর করিম বেনজেমাকেও ফিরিয়ে তারা ২০১৮ বিশ্বকাপের চেয়েও শক্তিশালী। এই দুই দলের সঙ্গে জার্মানি মিলিয়ে গ্রুপ ‘এফ’হয়ে আছে মৃত্যুকূপ।

এদিকে ৮ ম্যাচে জয়সহ টানা ২৭ ম্যাচে অপরাজিত ইতালি দল হয়তো শিরোপা জিতে গত বিশ্বকাপ না খেলার আক্ষেপ ঘোচাতে চাইবে। আর র‍্যাঙ্কিংয়ের বিচারে সময়ের সেরা বেলজিয়ামকে ডি ব্রুইন-হ্যাজার্ডদের সোনালি প্রজন্ম শেষ পর্যন্ত কোনো শিরোপা দিয়ে যেতে পারে কি না, গত ইউরো-বিশ্বকাপের মতো সে আলোচনাও আছে।

আবার রয়েছে স্পেন-হল্যান্ডের মতো পরাশক্তিও। তাছাড়া গত বিশ্বকাপের রানার্সআপ ক্রোয়েশিয়াকে ও সেমিফাইনালিস্ট ইংল্যান্ডকেও উড়িয়ে দেওয়া যায় না।