সরকারের নিয়ন্ত্রণে কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা কার্যক্রম উন্নয়নের বিধান রেখে ‘শিক্ষা আইন ২০২১’-এর খসড়া চূড়ান্ত করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) ভার্চুয়াল বৈঠকে খসড়াটি চূড়ান্ত করা হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

বৈঠকে শিক্ষা উপ-মন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলও যুক্ত ছিলেন। এছাড়া মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদ্রাসা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান এবং সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বৈঠকে যুক্ত হন।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষা আইনের খসড়াটি চূড়ান্ত করা হয়েছে। আইনের খসড়া নিয়ে শিগগিরই সাংবাদিকদের ব্রিফ করা হবে।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেন, একটা খসড়া দাঁড় করানো হয়েছে।’ খসড়ায় কী আছে জানতে চাইলে সচিব জানান, এ বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী ড. দীপু মনি শিগগিরই ব্রিফ করবেন। এতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন এবং শিক্ষা উপ-মন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী উপস্থিত থাকবেন।

 

সূত্র জানায়, খসড়ায় বলা হয়েছে সরকার কওমি মাদ্রাসার শিক্ষা কার্যক্রমের মানোন্নয়নের লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।  কওমি মাদ্রাসাগুলো সরকারের নিয়ন্ত্রণে রেখেই শিক্ষা কার্যক্রম উন্নয়ন করার বিধান যুক্ত করা হয়েছে।

বৈঠকে অংশ নেওয়া নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, সরকারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে কোনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চলতে পারে না। তাই সরকারের নিয়ন্ত্রণে রেখে শিক্ষার্থীদের কল্যাণে শিক্ষা কার্যক্রম উন্নয়নের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বৈঠক সূত্র জানায়, চূড়ান্ত খসড়াটি শিগগিরই ভেটিংয়ের জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে।