পরিবার এবং আইনজীবীর সাথে সাক্ষাৎ, মোবাইলে আলাপসহ টেকনাফ থানার বরখাস্তকৃত ওসি প্রদীপ দাশের করা সবগুলো আবেদনই খারিজ করে দিয়েছেন আদালত। মহানগর দায়রা জজ মোহাম্মদ আশফাকুর রহমানের আদালতে শুনানি শেষে আবেদনগুলো খারিজ করে জেলকোড অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়।

মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) দুপুরে পুলিশের কড়া পাহারায় প্রদীপ দাশকে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে নেয়া হয় আদালত ভবনে। শুরুতেই স্বজন এবং আইনজীবীর সাথে সাক্ষাতের আবেদন খারিজ করেন আদালত। পরবর্তীতে কারাগার থেকে মোবাইলে কথা বলার আবেদনও নাকচ করা হয়। তৃতীয় দফায় আবেদন জানানো হয় কারাগারের বাইরে উন্নত চিকিৎসার। আদালত সেই আবেদনও নাকচ করে জেলকোড অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেন।

তবে দুদকের তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার কথা থাকলেও প্রতিবেদন জমা দেয়া হয়নি। স্ত্রী চুমকির অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে গত ২৩ আগস্ট দুদকের দায়েরকৃত এই মামলায় ওসি প্রদীপকেও আসামি করা হয়।