সারাদেশের সরকারি স্কুলগুলোতে ভর্তির জন্য ডিজিটাল পদ্ধতিতে লটারির নির্ধারিত সূচি থাকলেও আজ ৩০ ডিসেম্বর তা হচ্ছে না। মঙ্গলবার উচ্চ আদালতের ভর্তি সংক্রান্ত এক শুনানি শেষে আদালত ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন করার জন্য আরও ১০ দিন সময় বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছেন। আদালতে মামলা চলমান থাকায় ভর্তির লটারি স্থগিত করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। কেন্দ্রীয়ভাবে ঢাকায় এ লটারি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো। এ নিয়ম শুধু পুরনো সরকারি ৩৪১ সরকারি হাইস্কুলের জন্য যারা সফটওয়্যারে ভর্তির আবেদন গ্রহণ করেছে। নতুন সরকারিকৃত স্কুলের জন্য নয়।

জানতে চাইলে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (মাধ্যমিক) মো. বেলাল হোসাইন সাংবাদিকদের বলেন, আদালতের আদেশের কারণে ভর্তির জন্য লটারি করার নির্ধারিত যে সূচি ছিল তা স্থগিত করা হয়েছে। পরে লটারি হওয়ার দিন তারিখ ঠিক করে জানানো হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানিয়েছে, সরকারি হাইস্কুলে ভর্তির লটারি আয়োজনে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর ও টেলিটকের প্রস্তুতিতেও ঘাটতি ছিল।

করোনা ভাইরাসের কারণে আসন্ন শিক্ষাবর্ষে সরকারি-বেসরকারি স্কুলগুলোর সব শ্রেণিতেই লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। সফটওয়্যার ব্যবহার করে অনলাইনে লটারি পরিচালনা করা হবে। চলতি বছর টেলিটকের মাধ্যমে ভর্তির আবেদন গ্রহণ করা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা ১১০ টাকা আবেদন ফিয়ের বিনিময়ে ৫টি সরকারি স্কুলে ভর্তির আবেদন করতে পেরেছেন।

]সারাদেশে মোট ৩৮৬টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অনলাইনে ভর্তির আবেদন নেয়া হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানে ভর্তিতে মোট ৪ লাখ ৬৭ হাজার ৩২৪টি আবেদন জমা পড়েছে। ভর্তিচ্ছু সব শিশু আবেদন করতে পারলে এ সংখ্যা অন্তত ৬ লাখ ছাড়িয়ে যেত বলে মন্তব্য করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব (লিংক যাবে) করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।