পুলিশের চট্টগ্রাম রেন্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন বলেছেন কক্সবাজারে পুলিশের পরিরবর্তন মানে ব্যাক্তি পরিবর্তনের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবেনা এই পরিবর্তন পুলিশ ও মানুষের মধ্যে আস্থা তৈরী দুরত্ব কমাতেই পরিবর্তন। নবনিযুক্ত পুলিশ সুপার বললেন, মাদক নির্মুল ও আইনশৃংখলা বজায় রাখা হচ্ছে মুল লক্ষ্য।

জানা যায়, পুলিশের গুলিতে অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ হত্যার পর কক্সবাজার জেলা পুলিশে আনা হয় নজিরবিহীন পরিবর্তন। শীর্ষ কর্মকর্তা থেকে শুরু করে নিচের সারির পুলিশ সদস্যকে বদলি করে পাঠানো হয় অন্যত্রে।
যোগদান করে নতুন পুলিশ সুপারসহ পনেরোশো ষাটজন পুলিশ সদস্য। মঙ্গলবার সকালে  নতুন পুলিশ সদস্যদের উদ্বুদ্ধ ও দিক নির্দেশনা দিতে কক্সবাজার সফরে এসেছেন চট্টগ্রাম রেন্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন।
সফরের প্রথমদিন সাংবাদিকদের ডিআইজি বলেন, কক্সবাজার জেলা পুলিশের পরিবর্তন মানে ব্যাক্তির পরিবর্তন নয়, এ পরিবর্তন গণমানুষের সাথে দূরত্ব কমানো, সেবার মান বাড়াতেই পরিবর্তন।
তিনি আরো বলেন, নতুন পুলিশদের পেশাদারিত্ব বজায়ের পাশাপাশি কক্সবাজারের আইনশৃংখলা রক্ষায় নিজেদের সবটুকুন দেয়ার নির্দেশা দেয়া হয়েছে।
কক্সবাজার জেলা নবনিযুক্ত পুলিশ সুপার বললেন, মাদক নির্মুলে তিনি জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করবেন।
ডিআইজি  চকরিয়া ও কক্সবাজার মডেল থানা পরিদর্শন করার পাশাপাশি রামু, উখিয়া ও টেকনাফ থানা পরিদর্শনের কথা রয়েছে বুধবার।