হ্নীলায় পথ গতিরোধ করে মোটরসাইকেলের উপর অতর্কিত গুলি বর্ষণ করেছে দুর্বৃত্তরা। এতে মোটরসাইকেলের চালক ও অপর সংগী গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হন।

জানা যায়, শনিবার রাত আনুমানিক সাড়ে ১০টার সময় রংগীখালী রাস্তার মাথার প্রধান সড়কের দিকে গুলির বিকট শব্দ শুনতে পান স্থানীরা। এখানে দুমড়ে মুষড়ে যাওয়া একটি মোটরসাইকেলের অদূরে দু’টি রক্তাক্ত দেহ পড়ে থাকতে দেখলে স্থানীয়রা তাদেরকে দ্রুত উদ্ধার করে লেদা আইএমও হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে অবস্থার অবণতি দেখা দিলে আইএমও কর্তৃপক্ষ তাদেরকে কক্সবাজারে রেফার করে।

এ সন্ত্রাসী হামলা কে বা কারা চালিয়েছে তার বিস্তারিত কিছু জানা না গেলেও আহতদের একজন ইউনিয়নের উলুচামরী এলাকার শওকত আলীর ছেলে সরওয়ার(৩৩) অপরজন ছৈয়দ নুর খলিবার ছেলে মোঃ নুর (৩০) বলে জানা গেছে।

এদিকে হামলার শিকার সরওয়ার তার ফুফাত ভাই ও মোঃ নুর হ্নীলা ইউনিয়ন আ’লীগ ও নৌকা প্রার্থীর কর্মী দাবি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জড়িতদের শাস্তি দাবি করেছেন হ্নীলা ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি, হ্নীলা ইউপির চেয়ারম্যান ও আ’লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী রাশেদ মাহমুদ আলী।

তিনি বলেন, হ্নীলা ইউনিয়নে একটি চক্র নৌকার বিরুদ্ধে উঠে পড়ে লেগেছে। তারা আমাকে না পেয়ে আমার আত্মীয় ও কর্মীদের উপর হামলা চালাচ্ছে।

তিনি এ ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

অভিযোগ পেলে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন টেকনাফ মডেল থানার ওসি মোঃ হাফিজুর রহমান।