কোপা আমেরিকা, ইউরোর মতো আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টগুলো শেষ। ক্লাব ফুটবলেরও চাপ নেই এখন। অলিম্পিক চললেও সেই প্রতিযোগিতায় মূলত তরুণ খেলোয়াড়েরাই খেলছেন। অন্যান্য ফুটবলারদের হাতে এখন শুধুই অবসর। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে খেলোয়াড়দের অ্যাকাউন্টগুলোয় ঢুঁ মারলেই বোঝা যায়, প্রায় সবাই-ই ছুটি কাটাচ্ছেন। নেইমারই বা বাদ যাবেন কেন!

বরাবরই আমুদে ফুটবলার হিসেবে পরিচিত নেইমার। জীবনকে পুরোদমে উপভোগ করতে পছন্দ করেন তিনি। তবে নেইমারের জীবনেও কি কষ্ট নেই? অবশ্যই আছে।

কয়েক দিন আগেরই তো কথা। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ঘরের মাঠ মারাকানায় কোপা আমেরিকার ফাইনালে হেরে বসে ব্রাজিল। হাজারো চেষ্টায় মেসিদের রক্ষণভাগে ফাটল ধরাতে পারেননি নেইমার। ঘরের মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বীদের শিরোপা নিয়ে উল্লাস করতে দেখেছেন। দলের ব্যর্থতায় নিজেও কেঁদেছেন নেইমার।

তবে ব্যর্থতা নিয়ে পড়ে থাকলে কি আর চলে? তাই নেইমারও হয়তো কষ্ট ভুলে এগিয়ে যেতে চাইছেন সামনে। কিছুদিন আগে নতুন চুলের স্টাইল দেখিয়ে চমকে দিয়েছেন ভক্তদের। এবার একটা মার্সিডিজ হেলিকপ্টার কিনে তাক লাগিয়ে দিলেন ফুটবলপ্রেমীদের। ব্রাজিলের রাজধানী রিও ডি জেনিরোয় নিজের বাড়ির সামনের বাগানে নিজের হেলিকপ্টারের পাশে ছবি তুলেছেন। সেই ছবি পোস্ট করেছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে, আর সেটা নিয়েই চলছে তোলপাড়।

তোলপাড় হওয়ার কারণও আছে। মার্সিডিজ ব্র্যান্ডের এই হেলিকপ্টারের দাম শুনলে চোখ কপালে উঠতে বাধ্য। হেলিকপ্টারটির জন্য পাক্কা এক কোটি পাউন্ড খসিয়েছেন নেইমার। বাংলাদেশের হিসেবে প্রায় ১১৭ কোটি টাকা! হেলিকপ্টারটিকে একদম নিজের মতো করে সাজিয়েছেন নেইমার, যেন যে কেউই দেখে বুঝতে পারে, বাহনটি কার। কালো রঙের এ হেলিকপ্টারের পেছন দিকে নেইমারের লোগোটাও শোভা পাচ্ছে জ্বলজ্বল করে।

এইচ-১৪৫ মডেলের মার্সিডিজ ব্র্যান্ডের এই হেলিকপ্টার একদম নতুন। বলা হচ্ছে, বিখ্যাত কমিক চরিত্র ব্যাটম্যানের বাহন ব্যাটমোবাইলের মতো করে বানানো হয়েছে এই হেলিকপ্টার। বলা হয়, নেইমার ডিসি কমিকসের অনেক বড় ভক্ত। আর ব্যাটম্যান ডিসি কমিকসেরই বিখ্যাত চরিত্র। নেইমার এই হেলিকপ্টার কিনে নিজেকে ব্যাটম্যান ভাবছেন কি না, কে জানে!