আর ‘এলএম-১০’ নয়, এবার লিওনেল মেসি গোল করলেই লিখতে হবে ‘এলএম-৩০’। কারণ যাবতীয় প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে ৩০ নম্বর জার্সি পরে প্যারিসের মাঠে নেমে পড়লেন লিওনেল মেসি। তবে এবার পিএসজি’র ঘরের ছেলে হয়ে।

মেসি সেই ৩০ নম্বর জার্সি বেছে নেওয়ায় অনেকেই নস্টালজিয়ায় ভেসে গেছেন।

কারণ ১৭ বছর আগে বার্সার সিনিয়র দলের হয়ে প্রথমবার মাঠে নামার সময় মেসির জার্সি নম্বর ছিল ৩০। দুইটি মৌসুমে ১৯ নম্বর জার্সিও পরেছিলেন। তারপর ২০০৮ সালে ১০ নম্বর জার্সি বেছে নিয়েছিলেন তিনি।

মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) দিবাগত রাতে পিএসজি এর পক্ষ হতে ১ মিনিট ৫৭ সেকেন্ডের একটি ভিডিও প্রকাশ করে মেসির পিএসজিতে যোগ দেওয়ার খবরটি নিশ্চিত করা হয়। পোস্টের ক্যাপশনে লেখা ছিল, পিএসজি * মেসি : প্যারিসের নতুন নায়ক। সেই ভিডিওর একদম শেষে আবার লেখা আছে, ‘লিও মেসি ২০২৩’। অর্থাৎ দুই বছরের চুক্তিতে প্যারিসে যোগ দিয়েছেন মেসি। তবে ফরাসি ক্লাবের তরফে জানানো হয়েছে, তৃতীয় বছরের একটি বিকল্পও আছে।

পিএসজি’র ঘরের ছেলে হওয়ার পর মেসি বলেন, পিএসজিতে আমার ক্যারিয়ারের নতুন অধ্যায় শুরু করতে পেরে আমি উচ্ছ্বসিত। ফুটবল নিয়ে আমার যে স্বপ্ন, তার প্রতিটি এই ক্লাবের সঙ্গে মিলে গেছে। আমি জানি, এখানকার খেলোয়াড় এবং সাপোর্ট স্টাফরা কতটা প্রতিভাবান। ক্লাব এবং সমর্থকদের জন্য ভালো কিছু তৈরি করতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ আমি।

বার্সেলোনাকে বিদায় জানিয়ে ফরাসি ক্লাব পিএসজিতে যোগ দিয়েছেন আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি।

দুই বছরের জন্য ক্লাবটির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন মেসি। যার ফলে ২০১৭ সালের পর আবারও ফুটবলে দেখা যাবে মেসি-নেইমার জুটি। এবার কেবল জার্সির রং বদলে যাবে। ২০১৭ সালে বার্সা থেকে পিএসজিতে যোগ দিয়েছিলেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার।